যে পদ্ধতিতে মাত্র ৫ টি প্রশ্ন করলেই জেনে যাবেন কোন সমস্যার প্রকৃত কারণ

লাইফস্টাইল

প্রতিনিয়ত আমাদের চারপাশে নানা ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। আমরা বেশিরভাগ সমস্যার প্রকৃত কারণ জানতে পারি না বা জানার চেষ্টাও করি না। ফলে সেই একই সমস্যার পুনরাবৃতি ঘটে।

যখন একটি সমস্যা সৃষ্টি হয় বা কোন ক্ষতি হয়ে যায়, তখন আমরা সাধারণত সেই সমস্যার সর্বশেষ কারণটি সম্পর্কে জানতে পারি। আর সেই সর্বশেষ কারণটি বিবেচনায় এনে নানা ধরণের মন্তব্য করি। আসল বিষয়টি কিন্তু এমন নয়। আমাদের উচিৎ কোন একটি সমস্যা সৃষ্টি হলে তার প্রকৃত কারণ খুঁজে বের করা এবং তার সমাধান করা। নইলে সেই সমস্যা আবার সৃষ্টি হবে।

আজ আমরা এমন একটি থিওরী সম্পর্কে জানবো যা প্রয়োগের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই কোন সমস্যার মূল কারণ খুঁজে বের করতে পারবেন। এই থিওরীটির নাম হচ্ছে “ফাইভ হোয়াই থিওরী”। অর্থাৎ ৫টি কেন প্রশ্নের মাধ্যমে আপনি কোন সমস্যার প্রকৃত কারণ সম্পর্কে জানতে পারবেন। আমরা এখন একটি উদাহরণের মাধ্যমে এই থিওরীটি সহজে বোঝার চেষ্টা করব।

ধরুন আপনি একটি পোশাক রপ্তানিকারক কোম্পানীর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা সি ই ও। চলতি বছরে আপনার কোম্পানীতে বড় ধরণের একটি লস হয়েছে। এই লসের কারণ হিসেবে দেখানো হয়েছে ৩০% পণ্যের গুনগত মান এবং সাইজ ঠিক না থাকার কারণে ক্রেতা পণ্য ফেরত পাঠিয়েছে। এখন আপনি আপনার ম্যানেজারকে ডেকে পাঠালেন এবং ফাইভ হোয়াই থিওরী প্রয়োগ করে তার কাছে এই ক্ষতির কারণ জানতে চাইলেন।

১ম প্রশ্নঃ আপনিঃ এবার কোম্পানীতে কেন এত বড় একটি লস হল?
ম্যানেজারঃ স্যার, এবারের শিপমেন্টে ৩০% পণ্যের গুণগত মান এবং সাইজ ঠিক না থাকায়, ক্রেতা পণ্য ফেরত পাঠিয়েছে।

২য় প্রশ্নঃ আপনিঃ আমাদের শ্রমিকেরা তো অনেক ভাল পোশাক তৈরি করে তবে এবার কেন মান এবং সাইজ ঠিক হল না?
ম্যানেজারঃ হাতে খুবই কম সময় ছিল। আর এই কম সময়ে এত পোশাক তৈরি করতে গিয়ে এমন সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

৩য় প্রশ্নঃ আপনিঃ কেন হাতে কম সময় ছিল?
ম্যানেজারঃ পোশাক তৈরির কাঁচামাল সরবরাহ পেতে বিলম্ব হওয়ায় পোশাক তৈরির সময় কম পেয়েছিলাম।

৪র্থ প্রশ্নঃ আপনিঃ কেন কাঁচামাল পেতে বিলম্ব হল?
ম্যানেজারঃ স্যার, কাঁচামাল সরবরাহকারীর ব্যাংকে অ্যাডভান্স পেমেন্টের চেক জমা হতে দেরি হওয়ায় তারা কাঁচামাল পাঠাতে দেরি করেছিল।

৫ম প্রশ্নঃ আপনিঃ কেন চেক জমা দিতে দেরি হল?
ম্যানেজারঃ প্রধান হিসাব রক্ষক ৫ দিনের ছুটি নিয়ে পরিবার সহ বেড়াতে গিয়েছিল। ফলে চেকটি জমা দিতে বিলম্ব হয়েছিল।

এখন কি বুঝলেন? কেন কোম্পানী এত বড় ক্ষতির সম্মুখীন হল? এর প্রকৃত কারণ কি ক্রেতা পণ্য গ্রহণ না করা, নাকি সময় মত প্রধান হিসাব রুক্ষক অফিসে না থাকা? নিশ্চয় প্রকৃত কারণ হচ্ছে সময়মত প্রধান হিসাব রক্ষক অফিসে না থাকার কারণে কোম্পানী এত বড় একটি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। যদি হিসাব রক্ষক সময়মত ছুটিতে না থেকে অফিসে থাকত, তবে সময় মত চেক জমা হত। সময় মত কাঁচামাল পাওয়া যেত এবং পর্যাপ্ত সময়ের মধ্যে ধীরে সুস্থে শ্রমিকেরা পণ্যগুলো গুণগত মান এবং সাইজ ঠিক রেখে পোশাক বানাতে সক্ষম হত এবং ক্রেতা সেই পণ্য সাদরে গ্রহণ করত। এখন এই সমস্যা যেন পরবর্তীতে না হয় তার জন্য কোম্পানীকে শ্রমিকদের ছুটি মঞ্জুর করার আগে তার পরবর্তী কাজগুলো সম্পর্কে খোঁজ খবর নিয়ে তবেই ছুটি মঞ্জুর করা উচিৎ হবে।

আপনি চাইলে এই ফাইভ হোয়াই থিওরী আপনার লাইফে প্রয়োগ করতে পারেন। এছাড়া আপনার প্রিয়জনদের শেয়ার করে তাদের এই থিওরীটি জানার সুযোগ করে দিতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *